National High School Programming Contest 2020 Rules

১. কনটেস্টে একটা সমস্যার জন্য যতবার ইচ্ছা কোড সাবমিট করা যাবে। তবে যদি বিচারক বা টাফ কর্তৃপক্ষ বিবেচনা করে থাকে যে কনটেস্টের প্ল্যাটফর্মকে বিঘ্নিত করার জন্য কোন প্রচেষ্টা করা হচ্ছে, তাহলে প্রতিযোগীকে প্রতিযোগিতা থেকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হবে।

২. প্রত্যকে প্রতিযোগীকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য হ্যান্ডেল ও পাসওয়ার্ড প্রদান করা হবে। এই তথ্যগুলো অন্য কোন ব্যক্তি বা প্রতিযোগীর সাথে শেয়ার করা যাবে না।

৩. কনটেস্টে ভুল সমাধানের জন্য কোন টাইম পেনাল্টি থাকবে না।

৪. একজন প্রতিযোগী একটির বেশী অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

৫. একটি সমস্যাকে কয়েকটি সাব-টাস্কে ভাগ করা থাকতে পারে। প্রতিটি সাব-টাস্কের প্রতিটি কেসের জন্য একজন প্রতিযোগীর কোডটি একবার করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে রান করা হবে। যদি কোন টেস্ট কেস সফলভাবে সমাধান হয়, তবে প্রতিযোগী ঐ কেসটির জন্য নির্ধারিত পয়েন্ট পাবে। একটি সমস্যা সম্পুর্ণভাবে সমাধান করলে একজন প্রতিযোগী সেই সমস্যার জন্য ১০০ পয়েন্ট পাবে।

৬. প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা চলার সময়ে অন্যের লেখা কোডের সাথে বা অনলাইনের কোডের সাথে কোন প্রতিযোগীর কোডের মিল পাওয়া গেলে প্রতিযোগীকে তৎক্ষণাৎ অথবা প্রতিযোগিতার পরে বহিষ্কার করা হবে।

৭. কনটেস্ট চলাকালে অন্য কোন প্রতিযোগী বা সাহায্যকারীর কাছ থেকে কোন প্রকার পরামর্শ গ্রহণ করা যাবে না।

৮. কনটেস্টের সময় কোন ধরণের ফোরাম, প্রশ্নোত্তর পাওয়া যায় এমন ওয়েবসাইট যেমন: স্ট্যাকওভারফ্লো, কোরা ইত্যাদি ব্যবহার করা যাবে না। কোন প্রতিযোগীর এমন প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারের প্রমাণ পাওয়া গেলে তাকে প্রতিযোগিতা থেকে বহিষ্কার করা হবে।

৯. কনটেস্টের প্রবলেমগুলো সি, সিপ্লাসপ্লাস, পাইথন ও পাইপাই ভাষায় সমাধান করা যাবে।

১০. কনটেস্টের কোন সমস্যা পরিষ্কারভাবে বুঝতে না পারলে টাফের ক্লারিফিকেশন সিস্টেমের মাধ্যমে একজন প্রতিযোগী বিচারকদের কাছে সমস্যাটি সম্পর্কে প্রশ্ন করতে পারে। সেক্ষেত্রে বিচারকরা প্রয়োজনবোধে সমস্যাটি সম্পর্কে সব প্রতিযোগীকে অতিরিক্ত তথ্য সরবরাহ করতে পারে। তবে বিচারকদের কাছে সমাধানের উপায় বা সহায়ক টেস্ট কেস জানতে চাওয়া যাবে না।

১১. ক্লারিফিকেশন সিস্টেমে বিচারকদের সাথে অশোভন আচরণ করা হলে প্রতিযোগীকে বহিষ্কার করা হতে পারে।

১২. কোন প্রতিযোগীর কোডে কোন প্রকারের আপত্তিকর বা বিতর্কিত কমেন্ট পাওয়া গেলে তাকে প্রতিযোগিতা থেকে বহিষ্কার করা হতে পারে।

১৩. কোড করার জন্য অনলাইন IDE বা Code Editor ব্যাবহার না করাই শ্রেয়। তাতে প্ল্যাগারিজমের শিকার হওয়ার ঝুঁকি কমে। অনলাইন এডিটরগুলোতে পাব্লিকলি কোড পেস্ট করলে যে কেউ সেটা দেখতে পায়। তাই এ ধরণের পরিস্থিতি পরিহার করাই ভালো।

১৪. প্রতিযোগিতার যে কোন বিষয়ে বিচারকদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।